মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২

গ্রাহক সেবা, বিদ্যুৎ লাইন নির্মাণ, নতুন সংযোগ প্রদান, বিদ্যুৎ বিক্রয় ও গ্রাহক প্রান্তে বিতরন, বিল আদায়, লাইন রক্ষনাবেক্ষণ, অভিযোগ গ্রহন ও সমাধান ইত্যাদি।

  • কী সেবা কীভাবে পাবেন
  • প্রদেয় সেবাসমুহের তালিকা
  • সিটিজেন চার্টার
  • সাধারণ তথ্য
  • সাংগঠনিক কাঠামো
  • কর্মকর্তাবৃন্দ
  • তথ্য প্রদানকারী কর্মকর্তা
  • কর্মচারীবৃন্দ
  • বিজ্ঞপ্তি
  • ডাউনলোড
  • আইন ও সার্কুলার
  • ফটোগ্যালারি
  • প্রকল্পসমূহ
  • যোগাযোগ

“এক অবস্থানে সেবা” কেন্দ্র হতে নতুন বিদ্যুৎ সংযোগের আবেদন ফরম ও তথ্য সেবা পাওয়া যায়। এছাড়াও নতুন সংযোগ, বিদ্যুৎ বিভ্রাট, বিদ্যুৎ বিল/মিটার সংক্রান্ত অভিযোগ, বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের ব্যবস্থা সহ এ সংক্রান্ত সকল ধরনের অভিযোগ গ্রহন/সমাধান দেয়া হয় এবং এতদসংক্রান্ত তথ্য পাওয়া যায়।জোনাল অফিস, এরিয়া অফিস ও অভিযোগ কেন্দ্রের মাধ্যমে অভিযোগ গ্রহন ও সমাধান করা হয়।

 

 
 

 


চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২

রাউজান,চট্টগ্রাম।

 

‘‘গ্রাহক সেবা নির্দেশিকা’’

 

বিদ্যুৎ ব্যবহারে মিতব্যয়ী হোন

 

অবৈধ বিদ্যুৎ ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন

 

গ্রাহক সেবার মান বৃদ্ধি করা

 

ফ্যাক্স নম্বরঃ ০৩০২৬-৫৬২১৩

ই-মেইলঃ info@ctgpbs2.org This e-mail address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it / ctgpbs2@yahoo.com

 

 

 

গ্রাহক সেবা কেন্দ্র

 

 

বিদ্যুৎ সরবরাহ দপ্তরে ‘‘ গ্রাহক সেবা কেন্দ্র ’’ এ নতুন সংযেগ বিদ্যুৎ বিভ্রাট/বিল/মিটার সংক্রান্ত অভিযোগ, বিল পরিশোধের ব্যবস্থাসহ সকল ধরনের অভিযোগ জানানো  যাবে এবং এতদসংক্রান্ত  বিষয়ে তথ্য পাওয়া যাবে।

 

 

নতুন সংযোগ গ্রহণঃ

 

*

‘‘ গ্রাহক সেবা কেন্দ্র’’ থেকে নতুন সংযোগের আবেদনপত্র পাওয়া যাবে। 

 

*

আবেদনপত্রটি যথাযথভাবে পূরণ করে নির্ধারিত আবেদন ফি নির্দিষ্ট ব্যাংক বুথ/শাখা অথবা ‘‘ গ্রাহক সেবা কেন্দ্র’’/ দপ্তরে জমা প্রদান করে জমা প্রদান রশিদ ও প্রয়োজনীয় দলিলাদির ‘‘ গ্রাহক সেবা কেন্দ্র’’ এ জমা করলে আপনাকে একটি নিবনন্ধন নম্বরসহ পরবর্তী আগমনের তারিখ জানানো হবে।

 

 

*

পরবর্তী আগমনের তারিখে যোগাযোগ করলে আপনাকে ডিমান্ড নোটও প্রাক্কলন ইস্যু করা যাবে। ‘‘ গ্রাহক সেবা কেন্দ্র’’ থেকে সংলগ্ন ব্যাংক বুথ/ নির্ধারিত ব্যাংক শাখায় /দপ্তরে ডিমান্ড নোটের উল্লেখিত টাকা জমা পূর্বক জমার রশিদ প্রদর্শন করলে সংযোগ প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।  বিদ্যুৎ সংস্থা কর্তৃক সরবরাহকৃত অথবা বিদ্যুৎ সংস্থা কর্তৃক  অনুমোদিত ক্রযকৃত মিটার গ্রাহক জমা দিলেমিটার কার্ডসহ মিটার ১৫ (পনের) দিনের মধ্যে

গ্রাহকের আঙ্গিনায় স্থাপন করা  হবে। যদি সংযোগ প্রদান সম্ভবপর না হয় তবে তার কারনে জানিয়ে আপনাকে একটি পত্র দেয়া হবে।

 

*

পরবর্তী মাসের  বিলিং সাইকেল অনুযায়ী গ্রাহকের প্রথম মাসের বিল জারী করা হবে।

 

*

‘‘ গ্রাহক সেবা কেন্দ্র’’ থেকে নতুন সংযোগ গ্রহনের নিয়মাবলী এবং এতদসংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্যাবলী সম্বলিত একটি পুস্তিকা প্রযোজন বেধে নির্ধারিত মূল্য পরিশোধ সাপেক্ষে সংগ্রহ করা যাবে।  

 

 

বিল সংক্রান্ত অভিযোগঃ

 

*

বিল সংক্রান্ত যে কোন অভিযোগ যেমনঃ চলতি মাসের বিল পাওয়া যায়নি, বকেয়া বিল, অতিরিক্ত বিল ইত্যাদির জন্য ‘‘ গ্রাহক সেবা কেন্দ্র’’ এ যোগাযোগ করলে তাৎক্ষনিক সমাধান সম্ভব হলে তা নিস্পত্তির ব্যবস্থা করা হবে।  

 

 

বিল পরিশোধঃ

 

*

‘‘ গ্রাহক সেবা কেন্দ্র’’ সংলগ্ন ব্যাংক বুথ / নির্ধারিত ব্যাংক/ দপ্তর-এ গ্রাহক বিল পরিশোধ করতে পারবেন।

 

*

প্রি-পেমেন্ট মিটারিং এর আওতাভুক্ত এলাকায় ভেন্ডিং সেন্টার এ  গিয়ে Card/Key No. সহ স্লিপ সংগ্রহের মাধ্যমে আগাম বিল পরিশোধ ( Recharge) করা যাবে। 

 

*

ইলেকট্রনিক বিল পে-এর আওতাভূক্ত এলাকায Point of sale (PCS) এর মাধ্যমে বিল পরিশোধ করা যাবে।

 

 

বিদ্যুৎ বিভ্রাটের অভিযোগঃ

 

*

বিদ্যুৎ সরবরাহ ইউনিটের নির্দিষ্ট ‘‘ অভিযোগ কেন্দ্র’’ অথবা ‘‘ গ্রাহক সেবা কেন্দ্র ’’ আপনার বিদ্যুৎ বিভ্রাটের অভিযোগ জানানো হলে আপনাকে অবিযোগ নম্বর ও নিস্পত্তির সম্ভাব্য সময় জানিয়ে দেয়া হবে। অভিযোগ নম্বরের ক্রমান্বয়ে আপনার বিদ্যুৎ বিভ্রাট দূরীভূত করার লক্ষ্যে ২৪ ঘন্টার মধ্যে নিস্পত্তির ব্যবস্থা নেয়া হবে। কোন কোন ক্ষেত্রে যদি নির্ধারিত সময়ে বিদ্যুৎ বিভ্রাট দূরীভূত করা সম্ভব না হয, তার কারন গ্রাহককে অবহিত করা হবে।

 

 

নতুন সংযোগের তথ্যাবলী ঃ

 

 

নতুন সংযোগের জন্য আবেদন পত্রের সাথে নিম্নোক্ত দলিলাদি দাখিল করতে হবেঃ

 

*

সংযোগ গ্রহনকারী পাসপোর্ট সাইজের ২ কপি সত্যায়িত ছবি।

 

*

জমির মালিকানা দলিলের সত্যাযিত কপি ।

 

*

সিটি কর্পোরেশন /নগর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ/পৌরসভা/স্থানীয় কর্তৃপক্ষ কর্তৃক বাড়ীর অনুমোদিত নক্সা এবং অথবা সিটি কর্পোরেশন / পৌরসভা স্থানীয় কর্তৃপক্ষ কর্তৃক নামজারীসহ হোল্ডিং নম্বর এর সত্যায়িত কপি ও দলিল অথবা দাগ নম্বর, খতিয়ান নম্বর, জমির দলিল, কমিশনারের সার্টিফিকেট (যেখানে নক্সা অনুমোদন নাই )

 

*

লোড চাহিদার  পরিমান

 

*

জমি/ভবনের ভাড়ার (যদি প্রযোজ্য হয) দলিল।

 

*

ভাড়ার ক্ষেত্রে মালিকের সম্মতি পত্রের দলিল।

 

*

পূর্বের কোন সংযোগ থাকলে ঐ সংযোগের বিবরণ ও সর্বশেষ পরিশোধিত বিলের কপি।

 

*

অস্থায়ী সঙযোগের ক্ষেত্রে বিবরণ (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে )।

 

*

বৈধ লাইসেন্সধারী কর্তৃক প্রদত্ত ইন্সটলেশন টেষ্ট (ওয়্যারিং) সার্টিফিকেট।

 

*

ট্রেড লাইসেন্স (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে )।

 

*

সংযোগ স্থানের নির্দেশক নকসা।

 

*

শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপনের নিমি&&ত্ত যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন।

 

*

পাওযার ফ্যাক্টর ইমপ্রুভমেন্ট প্লান্ট স্থাপন (শিল্পের ক্ষেত্রে)।

 

*

সার্ভিস লাইন এর দৈর্ঘ্য ১০০ ফুটের বেশী হবে না।

 

*

বহুতল আবাসিক/ বানিজ্যিক ভবন নির্মাতা ও মালিকের সাথে মালিকের চুক্তিনামার সত্যায়িত কপি।

 

শিল্প-কারখানা ও ৬ তলার অধিক ভবনে সংযোগের জন্য গ্রাহককে আরওযে দলিলাদি দাখির করতে হবেঃ

 

*

পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র  (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে )

 

*

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর ছাড়পত্র এর কপি।

 

 

নতুন সংযোগের জন্য জামানতের  পরিমানঃ

 

*

সিংগেল ফেইজ (২ তার)..২৩০ ভোল্ট আবাসিক ও বানিজ্যিক সংযোগের ক্ষেত্রে প্রতি কিলোওয়াট (Killowatt)  লোডের জন্য ----- টাকা ।

 

*

থ্রী ফেইজ (৪ তার)..৪০০ ভোল্ট আবাসিক ও বানিজ্যিক সংযোগের ক্ষেত্রে প্রতি কিলোওয়াট (Killowatt)  লোডের জন্য ----- টাকা ।

 

*

থ্রী ফেইজ (৪ তার)..৪০০ ভো০সেচ, অনাবাসিক, ক্ষুদ্র শিল্প সংযোগের ক্ষেত্রে প্রতি কিলোওয়াট (Killowatt)  লোডের জন্য ----- টাকা ।

 

*

থ্রী ফেইজ (৩ তার)..১১০০০ ভোল্ট  সংযোগের ক্ষেত্রে প্রতি কিলোওয়াট (Killowatt)  লোডের জন্য ----- টাকা ।

 

 

অস্থায়ী বিদ্যুৎ সংযোগ

 

*

সামজিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠান, বানিজ্যিক কার্যক্রম এবং নির্মান কাজের নিমিত্তে শুস্ককালীন সময়ের জন্য বিদ্যুৎ সংযোগ গ্রহন করতে পারবেন। সেক্ষেত্রে ২০০/৪০০ ভোল্ট বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য মূল্যহারকে ২ দ্বারা গুণ করতে হবে। ১১কেভি ও ৩৩ কেভি বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য মূল্যহার সংশ্লিষ্ট শ্রেণীর জন্য প্রয়োজ্য  শ্রেণীর  দ্বিগুণ হবে। গ্রাহক সংযোগ চার্জ  এবং অতিরিক্ত হিসেবে অস্থায়ী সংযোগের সময়ের জন্য দৈনিক ০৬ (ছয) ঘন্টা বিদ্যুৎ ব্যবহারের ভিত্তিতে প্রাক্কলিত বিল জমা দিলে পরবর্তী ০৭ (সাত) দিনের মধ্যে অথবা গ্রাহকের চাহিদার দিক থেকে  অস্থায়ী সংযোগ দেয়া হবে। গ্রাহকের জন্য অর্ধ মাসিক  বিদ্যুৎ বিলের সাথে সমন্বিত করা হবে। যদি অস্থায়ী সংযোগ প্রদান করা সম্ভব না হয তবে তার কারনে জানিয়ে গ্রাহককে একটি পত্র দেয়া হবে।

 

 

লোড পরিবর্তন

 

*

নতুন পরিবর্তন ফি প্রদান করা হবে।

 

*

চুক্তি পরিবর্তন ফি প্রদান করতে হবে।

 

*

লোড বৃদ্ধির জন্য প্রযোজ্য অনুযায়ী কিলোওযাট প্রতি বিদ্যমান হারে  জামানত প্রদান করতে হবে।

 

*

অতিরিক্ত লোডের জন্য সার্ভিস তার / মিটার বদলানোর প্রয়োজন হলে উক্ত ব্যয় গ্রাহককে বহন করতে হবে।

 

*

প্রাক্কলন ও জামানতের অর্থ জমা দানের ০৭ (সাত) দিনের মধ্যে লোড বৃদ্ধিকার্যকর করা হবে যদি লোড বৃদ্ধি করা সম্ভবপর না হয় তবে তার কারন জানিয়ে গ্রাহককে একটি পত্র দেয়া হবে।

 

 

গ্রাহকের নাম পরিবর্তন পদ্ধতি

 

 

গ্রাহক ক্রয়সূত্রে /ওযারিশসূত্রে / লিজসূত্রে  জায়গা বা প্রতিষ্ঠানের মালিক হলে সকল দলিলের সত্যায়িত ফটোকপি ও সর্বশেষ পরিশোধিত বিলের কপিসহ নির্ধারিত ফি ব্যাংকে জমা করে আবেদন করতে হবে। সরেজমিনে তদন্তকরে নাম পরিবর্তনের জন্য বিদ্যমান হারে জামানত  প্রদান করতে হবে। গ্রাহক জামানত বাবদ উক্ত বিল নির্ধারিত ব্যাংকের বুথ/ শাখা/দপ্তরে পরিশোধ করে তার রশিদ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে জমা দিলে ০৭ (সাত) দিনের মধ্যে নাম পরিবর্তন কার্যকর করা হবে।

 

অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহার, মিটারে হস্তক্ষেপ, বাইপাস বিনা অনুমতিতে সংযোগ গ্রহন ইত্যাদি ক্ষেত্রে আইনগত ব্যবস্থা

 

 

*

বিদ্যুৎ আইনের / Electricity Act, 1910 & As Amended and Electricity ( Amendmend) Act 2206/৩৯ ধারা অনুসারে এ ক্ষেত্রে ন্যূনতম  ১ বছর হতে ৩ বছর পর্যন্ত  জেল এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানার বিধান রয়েছে। তাছাড়া অবৈধভাবে  বিদ্যুৎ ব্যবহরের জন্য প্রতি ইউনিট ইত্যাদি ক্ষতিগ্রস্থ হয় তবে ক্ষতিগ্রস্থ বৈদ্যূতিক সরঞ্জাম, মিটার মিটারিং ইউনিট ইত্যাদি পুনরায় সম্ভব করা গেলে মেরামত  খরচ অথবা সম্পূর্ণ ধ্বংসপ্রাপ্ত বা পুনরায় সচল করা যাবে না এরুপ সংক্রামের জন্য পুনঃ স্থাপনের ব্যয়সহ প্রথম মূল্য আদায়  করা হবে।

শ্রেনী ভিত্তিক বিদ্যমান বিদ্যুতের মূল্যহার

(০১-০৩-২০০৭ ইং হতে প্রযোজ্য)

ক্রমিক নং

গ্রাহক শ্রেণী

প্রতি ইউনিট মূল্য (টাকার)

০১।

শ্রেণী-এঃ আবাসিক

(ক) প্রথম ধাপঃ ০০ হতে ১০০ ইউনিট

(খ) দ্বিতীয় ধাপঃ ১০১ হতে ৩০০ ইউনিট

(গ) তৃতীয় ধাপঃ ৪০০ ইউনিট এর উর্দ্ধে

 

২.৫০

৩.১৫

৫.২৫

০২।

 শ্রেণী- বিঃ কৃষি কাজে ব্যবহৃত পাম্প

১.৯৩

০৩।

 শ্রেণী সিঃ ক্ষুদ্র শিল্প

(ক) ফ্ল্যাট রেট

(খ) অফ পিক সময়ের রেট

(গ) পিক সময়ের রেট

 

৪.০২

৩.২০

৫.৬২

০৪।

 শ্রেণী- ডিঃ অনাবাসিক (আলো ও বিদ্যুৎ)

৩.৩৫

০৫।

 শ্রেণী ইঃ বাণিজ্যিক

(ক) ফ্ল্যাট রেট

(খ) অফ পিক সময়ের রেট

(গ) পিক সময়ের রেট

 

৫.৩০

৩.৮০

৮.২০

০৬।

 শ্রেণী এফঃ মধ্যম চাপ

সাধারণ ব্যবহার (১১ কেভি)

(ক) ফ্ল্যাট রেট

(খ) অফ পিক সময়ের রেট

(গ) পিক সময়ের রেট

 

৩.৮০

৩.১৪

৬.৭৩

 

০৭।

শ্রেণী জি-২ঃ অতি উচ্চ চাপ

সাধারণ ব্যবহার ১৩২ কেভি

(ক) সময় ২৩.০০-০৬.০০

(খ) সময় ০৬.০০-১৩.০০

(গ) সময় ১৩.০০-১৭.০০

(ঘ)সময়ঃ১৭.০০-২৩.০০

(ঙ) ফ্ল্যাট রেট

 

 

১.৪৯

২.৪৮

১.৮৮

৫.৫২

২.৮২

০৮।

 শ্রেণী এইচঃ উচ্চ চাপ

সাধারণ ব্যবহার (৩৩ কেভি)

(ক) ফ্ল্যাট রেট

(খ) অফ পিক সময়ের রেট

(গ) পিক সময়ের রেট

 

৩.২৮

৩.০৩

৬.৪৫

 

০৯।

শ্রেণী-জেঃ রাস্তার বাতি ও পাম্প

৩.৮৬

     

 

·        পিক সময়ঃ বিকাল ৫ টা থেকে রাত ১১ টা পর্যন্ত

·        অফ-পিক সময়ঃ রাত ১১ টা থেকে পরদিন বিকাল ৫ টা পর্যন্ত

চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ কে স্বনির্ভর হিসেবে গড়া

           -ঃ গ্রাহকের জ্ঞাতব্য বিষয়ঃ-

 

*

সন্ধ্যা পিক-আওয়ারে বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হোন। আপনার সাশ্রয়কৃত বিদ্যুৎ অন্যকে আলো জ্বালাতে সাহায্য করবে।

*

সংযোগ বিচ্ছিন্ন এড়াতে নিয়মিত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করুন এবং সারচার্জ পরিশোধের ঝামেলা থেকে মুক্ত থাকুন।

*

বিদ্যুৎ বিল সাশ্রয়কল্পে মানসম্মত এনার্জি সেভিং বাল্ব (CFL) ও বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম ব্যবহার করুন।

*

 টিউব লাইটে Electronic Ballastব্যবহার করে বিদ্যুৎ  সাশ্রয় করুন।

*

 বিদ্যুৎ একটি মূল্যবান জাতীয় সম্পদ। দেশের বৃহত্তর স্বার্থে এই সম্পদের সুষ্ঠু ও পরিমিত ব্যবহারে ভূমিকা রাখুন।

*

বৎসরান্তে বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ / ই,এস,ইউ / পবিস হতে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের প্রমাণ পত্র প্রদান করা হয়ে থাকে।

*

মিটার রক্ষনাবেক্ষণের দায়িত্ব আপনার। এর সঠিক সুষ্ঠু অবস্থা ও সীল সমূহের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন।

*

 লোড শেডিং সংক্রান্ত তথ্য সংস্থা সমূহের ওয়েব সাইট থেকে জানা যাবে। যদি কোন কারণে ওয়েব সাইট থেকে তথ্য না পাওয়া যায় সেক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট এলাকার আওতাধীন কন্ট্রোল রুম / অভিযোগ কেন্দ্র থেকে জানা যাবে।

*

 বিদ্যুৎ চুরি ও এর অবৈধ ব্যবহার থেকে নিজে বিরত থাকুন ও অন্যকে নিবৃত করুন। বিদ্যুৎ চুর ও এর অবৈধ ব্যবহার রোধে আপনার জ্ঞাত তথ্য গ্রাহক সেবা কেন্দ্র / অভিযোগ কেন্দ্র এ অবহিত করে সহযোগিতা করা আপনার দায়িত্ব ।

*

ইদানিং একটি সংঘবদ্ধ অসাধূ চক্র চালু লাইনে হতে ট্রান্সফরমার / বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি / তার চুরির সাথে জড়িত । সুতরাং আপনার এলাকার উপরিউক্ত চুরি রোধে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করুন।

                                                                           

বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্নকরণ এড়াতে যথাসময়ে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করুন।

চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২

রাউজান,চট্টগ্রাম।

 

 

 

‘‘গ্রাহক সেবা নির্দেশিকা’’

            দৃষ্টি আকর্ষণী বিজ্ঞপ্তি

চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২,রাউজান,চট্টগ্রাম এর সম্মানিত গ্রাহক গনের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে,ফাল্গুন ও চৈত্র মাসে আবহাওয়া পরিবর্তনের ফলে সময়ে সময়ে ব্যাপক ঘর্ণিঝড় হয়। উক্ত সময়ে ঝড়ের ফলে বৈদ্যুতিক লাইনের তার ও অন্যান্য সামগ্রী ছিঁড়ে অরক্ষিত অবস্থায় থাকে। ফলে বিদ্যুৎ স্পষ্ট হয়ে মারাত্মক দূর্ঘটনাসহ প্রাণহানি ঘটার আশংকা থাকে। এমতাবস্থায় বৈদ্যুতিক দূর্ঘনা এড়ানোর লক্ষ্যে লাইন ও অন্যান্য সামগ্রী ছিঁড়া অথবা অরক্ষিত অবস্থায় পাওয়া গেলে তা স্পর্শ না করে তাৎক্ষণিকভাবে নিকটস্থ পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে খবর দিন।

            নিম্নে জরুরী টেলিফোন নম্বর সমূহ দেওয়া হ’লঃ

 

ক্রমিক নং

ব্যবহারকারী / অফিসের নাম

 

মোবাইল নম্বর

০১

রাউজান সদর দপ্তর অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭৩২২৯৪১০

০২

গহিরা এরিয়া অফিস

০১৯৭৩২২৯৪০৯

০৩

রানীরহাট অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭৩২২৯৪১২

০৪

নোয়াপাড়া জোনাল অফিসস্থ অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭৩২২৯৪২১

০৫

পাহাড়তলী অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭৩২২৯৪২২

০৬

মগদাই অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭৩২২৯৪২৩

০৭

ফটিকছড়ি জোনাল অফিসস্থ অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭৩২২৯৪১৩

০৮

নাজিরহাট এরিয়া অফিস

০১৯৭৩২২৯৪১৪

০৯

কাজিরহাট অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭৩২২৯৪১৫

১০

দাঁতমারা অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭৩২২৯৪১৬

১১

বাগান বাজার অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭৩২২৯৪৬০

১২

আজাদীবাজার জোনাল অফিসস্থ অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭৩২২৯৪২৪

১৩

মাইজভান্ডার অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭৩২২৯৪২৫

১৪

রাংগুনিয়া জোনাল অফিসস্থ  অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭৩২২৯৪১৭

১৫

গোচরা অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭৩২২৯৪১৮

১৬

শিলক অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭৩২২৯৪১৯

১৭

সরফভাটা অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭৩২২৯৪৫৯

১৮

মোগলের হাট অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭৩২২৯৪২০

১৯

লিচুবাগান অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭০০৮০৮৯৬

২০

পদুয়া অভিযোগ কেন্দ্র

০১৯৭০০৮০৮৯৮

 

ফ্যাক্স নম্বরঃ ০৩০২৬-৫৬২১৩

ই-মেইলঃ ctgpbs2@yhaoo.com

 

বিদ্যুৎ ব্যবহারে মিতব্যয়ী হোন

অবৈধ বিদ্যুৎ ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন

‘‘উত্তম গ্রাহক সেবাই আমাদের লক্ষ্য’’

 

এক অবস্থানে সেবা কেন্দ্র

 

চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ -২ এর সদর দপ্তর  ও জোনাল অফিস সমূহে‘‘ এক অবস্থানের সেবা ’’ কেন্দ্রে  নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ/বিদ্যুৎ বিভ্রাট/বিল/মিটার সংক্রান্ত অভিযোগ, বিল পরিশোধের ব্যবস্থাসহ সকল ধরনের অভিযোগ জানানো  যাবে এবং এতদসংক্রান্ত  বিষয়ে তথ্য পাওয়া যাবে।

 

নতুন সংযোগ গ্রহণঃ

*

সমিতির সদর দপ্তর  ও অন্যান্য জোনাল অফিস এর ‘‘ এক অবস্থানের সেবা ’’ কেন্দ্র  থেকে নতুন সংযোগের আবেদনপত্র পাওয়া যাবে। 

*

আবেদনপত্রটি যথাযথভাবে পূরণ করে নির্ধারিত আবেদন ফি সদর দপ্তর  ও অন্যান্য জোনাল অফিস সমূহের ক্যাশ শাখায় জমা প্রদান করে জমা প্রদান রশিদ ও প্রয়োজনীয় দলিলাদিসহ ‘‘ এক অবস্থানের সেবা কেন্দ্র’’ এ জমা করলে আপনাকে একটি নিবনন্ধন নম্বও দেয়া হবে।

*

আবেদনপত্রটি সমিতি কর্তৃক কারিগরী সমীক্ষার মাধ্যমে অণুমোদন হওয়ার পর অনুমোদন ও পরবর্তী আগমনের তারিখ পত্রদিয়ে জানানো হবে। যদি সংযোগ প্রদান সম্ভবপর না হয় তবে কারণ জানিয়েও পত্র দেয়া হবে।

*

পরবর্তী আগমনের তারিখে যোগাযোগ করলে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে আপনাকে ডিমান্ড নোটও প্রাক্কলন ইস্যু করা যাবে। ‘‘ এক অবস্থানের সেবা কেন্দ্র’’ সংলগ্ন  অত্র দপ্তরের ক্যাশ শাখায় ডিমান্ড নোটের উল্লেখিত অর্থ জমা প্রদান করে সমিতির সনদপ্রাপ্ত বৈধ ইলেকট্রিয়ান কর্তৃক ওয়্যারিং সম্পন্ন পূর্বক অবহিত করলে সমিতি কতৃর্ক  ওয়্যারিং পরিদর্শন পূর্বক সদস্য ফি ও নিরাপত্তা জামানত জমা সাপেক্ষে আপনার সংযোগ প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। 

*

গ্রাহক প্রান্তে মিটার সহাপনের পরবর্তী মাসের  বিলিং সাইকেল অনুযায়ী গ্রাহকের প্রথম মাসের বিল জারী করা হবে।

*

‘‘ এক অবস্থানের সেবা কেন্দ্র’’ থেকে নতুন সংযোগ গ্রহনের নিয়মাবলী ও এতদসংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্যাবলী সম্বলিত একটি পুস্তিকা প্রয়োজন বোধে নির্ধারিত মূল্য পরিশোধ সাপেক্ষে সংগ্রহ করা যাবে। 

 

বিল সংক্রান্ত অভিযোগঃ

*

বিল সংক্রান্ত যে কোন অভিযোগ যেমনঃ চলতি মাসের বিল পাওয়া যায়নি, বকেয়া বিল, অতিরিক্ত বিল ইত্যাদির জন্য ‘‘ এক অবস্থানের সেবা কেন্দ্র’’ এ যোগাযোগ করলে তাৎক্ষনিক সমাধান সম্ভব হলে তা নিস্পত্তির ব্যবস্থা করা হবে। অন্যথায় একটি নিবন্ধন  নম্বর দিয়ে পরবর্তী যোগাযোগের সময় আপনাকে জানিয়ে দেয়া হবে এবং পরবর্তী ৭ (সাত) দিনের মধ্যে নিষ্পত্তির ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

 

বিল পরিশোধঃ

*

‘‘ এক অবস্থানের সেবা কেন্দ্র’’ সংলগ্ন অত্র পবিস এর ক্যাশ শাখায়/ নির্ধারিত ব্যাংকে গ্রাহক বিল পরিশোধ করতে পারবেন।

*

গংযোগ বিচ্ছিন্নকারী টীমের নিকট বিকল্প আদায় রশিদের মাধ্যমে বকেয়া বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করা যায়। বিচ্ছিন্নকারী দলের নিকট বিল পরিশোধ করলে বিচ্ছিন্ন ফি বাবদ বাড়ী ও দাতব্য প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে ১৫০.০০টাকা, বানিজ্যিক (০১-০৫ কিঃ ওঃ পর্যন্ত) লোড যাহাদের তাদেরকে ২২৫.০০টাকা এবং বানিজ্যিক (০৫ কিঃ ওঃ উর্দ্ধে) লোড যাদের তাদেরকে ৩০০.০০ টাকা, রাস্তার বাতি ২০০.০০ টাকা,সেচ (১ফেজ) ২০০.০০ টাকা সেচ (৩ ফেজ ) ৪০০.০০ টাকা ,শিল্প (১ ফেজ) ৪০০.০০ টাকা ,শিল্প (৩ ফেজ ১০কেভিএ পর্যন্ত) ৪০০.০০ টাকা , শিল্প (৩ ফেজ ১০কেভিএ হতে ৪৫ কেভিএ পর্যন্ত)১০০০.০০ টাকা , শিল্প (৩ ফেজ ৪৫কেভিএ হতে ৭৫ কেভিএ পর্যন্ত)১৫০০.০০ টাকা , শিল্প (৩ ফেজ ৭৫কেভিএ হতে ১৫০ কেভিএ পর্যন্ত)২০০০.০০ টাকা , শিল্প (৩ ফেজ ১৫০কেভিএ -এর উর্দ্ধে)৩০০০.০০ টাকা সহ পরিশোধ করতে হবে।                                                                                                                                                   

 

বিদ্যুৎ বিভ্রাটের অভিযোগঃ

*

চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ -২ এর আওতাধীন সকল ‘‘ অভিযোগ কেন্দ্রে’’  আপনার বিদ্যুৎ বিভ্রাটের অভিযোগ জানানো হলে আপনাকে অভিযোগ নম্বর ও নিস্পত্তির সম্ভাব্য সময় জানিয়ে দেয়া হবে। অভিযোগ নম্বরের ক্রমানুসারে আপনার বিদ্যুৎ বিভ্রাট দূরীভূত করার লক্ষ্যে ২৪ ঘন্টার মধ্যে নিস্পত্তির ব্যবস্থা নেয়া হবে। কোন কোন ক্ষেত্রে যদি নির্ধারিত সময়ে বিদ্যুৎ বিভ্রাট দূরীভূত করা সম্ভব না হয, তার কারণ গ্রাহককে অবহিত করা হবে।

 

নতুন সংযোগের জন্য দলিলাদি ঃ

 

নতুন সংযোগের জন্য আবেদন পত্রের সাথে নিম্নোক্ত দলিলাদি দাখিল করতে হবেঃ

*

সংযোগ গ্রহনকারীর পাসপোর্ট সাইজের ২ (দুই) কপি সত্যায়িত রঙিন ছবি।

*

জাতীয়তা সনদ(মেয়র/চেয়ারম্যান কর্তৃক)অথবা ভোটার আইডি কার্ডেও কপি।

*

জমির মালিকানা দলিলের সত্যায়িত কপি ।

*

ইউনিয়ন পরিষদ/পৌরসভা কর্তৃক বাড়ীর অনুমোদিত সত্যায়িত নকসা এবং  নামজারীসহ হোল্ডিং নম্বর এর সত্যায়িত কপি ও দলিল অথবা দাগ নম্বর, খতিয়ান নম্বর, জমির দলিল, চেয়ারম্যান/কমিশনারের সার্টিফিকেট (যেখানে নকসা অনুমোদন নাই )।

*

 চাহিদাকৃত লোডের পরিমাণ।

*

জমি/ভবনের ভাড়ার (যদি প্রযোজ্য হয়) দলিল।

*

ভাড়ার ক্ষেত্রে মালিকের সম্মতি পত্রের দলিল।

*

পূর্বের কোন সংযোগ থাকলে ঐ সংযোগের বিবরণ ও সর্বশেষ পরিশোধিত বিলের কপি।

*

অস্থায়ী সংযোগের ক্ষেত্রে বিবরণ (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে )।

*

ট্রেড লাইসেন্স (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে )।

*

সংযোগ স্থানের নির্দেশক নকসা।

*

শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপনের নিমিত্তে যথাযথ কর্তৃপক্ষের (পরিবেশ অধিদপ্তর) অনুমোদন।

*

পাওয়ার ফ্যাক্টর ইমপ্রুভমেন্ট প্লান্ট স্থাপন /ক্যাপাসিটর স্থাপন (শিল্পের ক্ষেত্রে)।

*

সার্ভিস লাইন এর দৈর্ঘ্য ১০৫ ফুটের বেশী হবে না।

*

বহুতল আবাসিক/ বানিজ্যিক ভবন নির্মাতা ও মালিকের সাথে ফ্ল্যাট মালিকের চুক্তিনামার সত্যায়িত কপি।

*

সিঙ্গেল লাইন ডায়াগ্রাম।

*

মিটারিং কক্ষ প্রদানেরঅঙ্গীকারনামা (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)।

*

উপকেন্দ্রে স্থাপিত সব যন্ত্রপাতির, ষ্পেসিফিকেশন ও টেষ্ট রেজাল্ট এবং বৈদ্যুতিক উপদেষ্টা ও প্রধান বিদ্যুৎ পরিদর্শকের দপ্তর থেকে প্রদত্ত উপকেন্দ্র সংক্রান্ত ছাড়পত্র।

*

সোলার প্যানেল স্থাপনের প্রয়োজনীয় দলিলাদি প্রদান করিতে হইবে।

শিল্প-কারখানা ও ৬ তলার অধিক ভবনে সংযোগের জন্য গ্রাহককে আরও যে দলিলাদি দাখিল করতে হবেঃ

*

পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র  (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে )

*

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর ছাড়পত্রের কপি ।

নতুন সংযোগের জন্য আবেদন ফি

ক্রঃ নং

বিবরণ

অফেরৎযোগ্য সমীক্ষা ফি

০১

ক) বাড়ী /বাণিজ্যিক/দাতব্য প্রতিষ্ঠানের বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য একক

আবেদনের ক্ষেত্রেঃ

১০০.০০

খ) ২ হইতে ৯ জন পর্যন্ত আবেদনের (জন প্রতি) ক্ষেত্রেঃ

১০০.০০

গ) ১০ হইতে ২০ জন পর্যন্ত গ্রুপ সম্বলিত আবেদনের ক্ষেত্রেঃ

১৫০০.০০

ঘ) ২১ জন ও তদুর্দ্ধের গ্রুপ সম্বলিত আবেদনের ক্ষেত্রে (নির্ধারিত)ঃ

২০০০.০০

০২

সেচ সংযোগের জন্যঃ

২৫০.০০

০৩

যে কোন ধরনের অস্থায়ী সংযোগের জন্যঃ

১৫০০.০০

০৪

উপরে বর্ণিত সংযোগ ও শিল্প প্রতিষ্ঠান ব্যতীত অন্য কোন সাময়িক / স্থায়ী সংযোগের জন্যঃ

১৫০০.০০

০৫

পোল স্থানান্তর / লাইন রুট পরিবর্তন / সমিতি কর্তৃক স্থাপিত অন্য গ্রাহকের সার্ভিস

ড্রপ স্থানান্তরের আবেদনের জন্যঃ

৫০০.০০

০৬

শিল্প প্রতিষ্ঠানের সংযোগের জন্য (জিপি)ঃ

২৫০০.০০

০৭

বৃহৎ শিল্প প্রতিষ্ঠানের সংযোগের জন্য (এলপি)ঃ

৫০০০.০০

    

 

 

নতুন সংযোগের জন্য জামানতের  পরিমানঃ

ক্রমিক নং

গ্রাহক শ্রেনী

লোডের বিবরণ / নিরাপত্তা জামানত নিরূপনের পদ্ধতি

নিরাপত্তা জামানত (টাকা)

০১

আবসিক,বাণিজ্যিক দাতব্য প্রতিষ্ঠান

০.৫০ কিঃ ওঃ পর্যন্ত লোড

৫০০.০০

০.৫০ কিঃ ওঃ এর উর্দ্ধে এবং ১ কিঃ ওঃ পর্যন্ত

৬০০.০০

১ কিঃ ওঃ এর উর্দ্ধে

৬০০.০০ যোগ ২০০.০০ প্রতি কিঃ ওঃ অথবা প্রতি ভগ্নাংশের জন্য।

 

 

বাণিজ্যিক

 

৫ কিঃ ওঃ পর্যন্ত

৫ কিঃ ওঃ এর উর্দ্ধে,

সংযুক্ত লোড (কিঃ ওয়াট অথবা কেভিএ ´০.৯৫) ´৮ ঘন্টা ´২৫ দিন ´২ মাস ´বিদ্যুৎ মূল্যহার (টাকা / প্রতি কিঃ ওঃ ঘঃ)।

কিঃ ওঃ´প্রতি কিঃওঃ ২৩৬০.০০ টাকা হারে (পরিবর্তন যোগ্য)

০২।

রাস্তার বাতি

৬ (ছয়) মাসের ন্যূনতম বিলের সমপরিমান

১৫০০.০০টাকা, প্রতি রাস্তার বাতি  (পরিবর্তন যোগ্য)।

০৩।

শিল্প

(জি পি / এল পি)

সংযুক্ত লোড (কিঃ ওয়াট অথবা কেভিএ ´০.৯৫) ´৮ ঘন্টা ´২৫ দিন ´২ মাস ´বিদ্যুৎ মূল্যহার (টাকা / প্রতি কিঃ ওঃ ঘঃ)।

 ১৮৫২.০০টাকা ,প্রতি কিঃ ওঃ(পরিবর্তন যোগ্য)।

 

নোটঃ যে কোন ধরণের সরকারী প্রতিষ্ঠান হতে লীজ গ্রহনকৃত জমিতে স্থাপিত স্থাপনায় সংযোগ প্রদানের ক্ষেত্রে গ্রাহককে নিয়মানুযায়ী গ্যারান্টি ডিপোজিটের অতিরিক্ত হিসেবে প্রতি কিলোওয়াট বা অংশ বিশেষ লোড এর জন্য ১০০০.০০(এক হাজার) টাকা করে অতিরিক্ত গ্যারান্টি ডিপোজিট প্রদান করতে হবে। তবে ব্যক্তিগত জমি লীজ গ্রহণের মাধ্যমে সংযোগের ক্ষেত্রে এর পরিমান হবে প্রতি কিলোওয়াট বা অংশ বিশেষ লোডের জন্য ৫০০.০০(পাচঁশত) টাকা । সকল ক্ষেত্রে অনুমোদিত লোডের উপরে আলোচ্য ডিপোজিট আদায়যোগ্য।

 

 

অফেরৎযোগ্য জামানত

 

শুধুমাত্র ধান,আটা ও ময়দা কলের ক্ষেত্রে ফেরতযোগ্য জামানত ছাড়াও নিম্নোক্তহারে অফেরৎযোগ্য জামানত জমা দিতে অথবা ট্রান্সফরমার সরবরাহ করতে হবে।

 

*

একফেজ সংযোগ প্রতি অশ্বশক্তি ৭৫০.০০ টাকা হারে।

 

*

তিনফেজ সংযোগ প্রতি অশ্বশক্তি ১৫০০.০০ টাকা হারে।

 

*

সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার এক বছর পর পুনঃ সংযোগ নিলে অফেরৎযোগ্য জামানত পূনরায় আদায়যোগ্য।

 

*

ডিপোজিট ওর্য়াক ( ১০০-৪২) এর আওতায় আবেদনকারী কর্তৃক ট্রান্সফরমারের মূল্য পরিশোধ করা হলে সেক্ষেত্রে অফেরৎযোগ্য জামানত জমা প্রদানের প্রয়োজন হবে না।

 

 

অস্থায়ী বিদ্যুৎ সংযোগ

 

*

ধর্মীয় অনুষ্ঠান, মেলা ,আনন্দ মেলা এবং রাস্তা, ব্রীজের নির্মাণ কাজের জন্য অস্থায়ী বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা যাবে কিন্তু চলমান নিমার্ণ কাজ সম্পন্ন বাড়ী, শিল্প  অথবা কমপ্লেক্সে অস্থায়ী সংযোগ প্রদান করা যাবে না। এ সংযোগ শুধুই অস্থায়ী ভিত্তিতে যা কখনই স্থায়ী সংযোগে পরিবর্তন করা যাবে না। এ ধরণের সংযোগের জন্য নিম্নলিখিত শর্ত ও পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে। 

 

(ক)

১) এ সংযোগের জন্য প্রয়োজনীয় সকল মালামালের বুক ভ্যালুর শতকরা ১১০ ভাগ মূল্যে গ্রাহককে অগ্রীম জমা প্রদান করতে হবে (ট্রান্সফরমার, লাইটনিং এ্যারেষ্টার, ফিউজ কাটআউট , মিটার এবং মিটার সকেট ব্যতিত)কার্য সম্পন্নের পর উক্ত মালামাল ব্যবহারের উপযুক্ত হলে ১০০% মালামালের মূল্য ফেরৎ প্রদান করা হবে।

২)অস্থায়ী সংযোগ প্রদানে নতুন ট্রান্সফরমার এর প্রয়োজন হলে ট্রান্সফরমার স্থাপন এবং রিমুভ চার্জ বাবদ ১ ফেজ ২০০০.০০টাকা এবং ৩ ফেজ এর ক্ষেত্রে ৪০০০.০০ টাকা অগ্রীম প্রদান করতে হবে ( অফেরৎযোগ্য)।

৩) ট্রান্সফরমারের মাসিক ভাড়া ১ ফেজের ক্ষেত্রে ১০০০.০০ টাকা এবং ৩ ফেজের ক্ষেত্রে ২০০০.০০ টাকা অথবা প্রতি কেভিএ ৬০.০০ টাকা হারে দুই এর মধ্যে যেটি বেশী তা বিদ্যুৎ বিলের সাথে আদায়যোগ্য হবে।

৪) ভাড়ায় প্রদানের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ০২ (দুই) বছরের জন্য ভাড়া দেয়া যাবে।

 

(খ)

সার্ভিস চুক্তি অনুযায়ী নির্ধারিত সময়ের ব্যবহৃত বিদ্যুতের প্রাক্কলিত মূল্য জিপি রেট সিডিউল অনুযায়ী অগ্রীম জমা দিতে হবে।

 

(গ)

এ সংযোগ সুবিধা সৃষ্টির জন্য প্রয়োজনীয় শ্রমিকের মজুরী এবং বিচ্ছিন্ন ও সংযোগ ফি অগ্রীম জমা প্রদান করতে হবে।

 

 

উপরোক্ত বর্ণনানুযায়ী অর্থ ছাড়াও নীতি নির্দেশিকা মোতাবেক প্রযোজ্য ক্ষেত্রে লাইন নির্মাণ/ লাইন রূপান্তর/ পরিবর্তন ব্যয় গ্রাহককে বহন করতে হবে। সংযোগ প্রত্যাহারের পর প্রকৃত ব্যবহারের ভিত্তিতে অগ্রীম গ্রহন সমন্বয় করা হবে।

 

 

                                            লোড পরিবর্তন

 

 

লোড বৃদ্ধির জন্য প্রযোজ্য ফি নিম্নরূপঃ                                                       

 

ক্রঃনং

বিবরণ

ফি (টাকা)

 

১।

লোড (০-১০) কিঃ ওঃ পর্যন্ত।

১০০০.০০

 

২।

লোড (১১-৪৫) কিঃ ওঃ পর্যন্ত।

২০০০.০০

 

৩।

লোড (৪৬ থেকে তদুর্ধ) কিঃ ওঃ ।

৫০০০.০০

 

*

 লোড বৃদ্ধির ক্ষেত্রে বর্ধিত লোডের জন্য শ্রেণী ভিত্তিক অতিরিক্ত ফেরতযোগ্য/অফেরৎযোগ্য ( প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) জামানত প্রদান করতে হবে।

 

*

অতিরিক্ত লোডের জন্য সার্ভিস তার/ ট্রান্সফরমার বদলানোর প্রয়োজন হলে উক্ত ব্যয় গ্রাহককে বহন করতে হবে।

 

*

প্রাক্কলন জামানতের অর্থ জমাদানের পর মালামাল প্রাপ্তি সাপেক্ষে (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) লোড বৃদ্ধি কার্যকর করা হবে। যদি লোড বৃদ্ধি করা সম্ভবপর না হয় তবে তার কারণ জানিয়ে গ্রাহককে পত্র দেয়া হবে।

 

 

গ্রাহকের নাম পরিবর্তন পদ্ধতি

 

 

গ্রাহক ক্রয়সূত্রে /ওয়ারিশসূত্রে জায়গা বা প্রতিষ্ঠানের মালিক হলে সকল দলিলের সত্যায়িত ফটোকপি ও সর্বশেষ পরিশোধিত বিলের কপি প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ট্রেড লাইসেন্স , আর্টিকেল অব মেমোরেন্ডম,পাসপোর্ট সাইজের ২(দুই) কপি সত্যায়িত রঙিন ছবিসহ আবেদন করতে হবে। সরেজমিনে তদন্ত সাপেক্ষে মালিকানা পরিবর্তনের জন্য নির্ধারিত হারে জামানত  প্রদান ও  মালিকানা পরিবর্তন ফি জমা প্রদান সাপেক্ষে ০৭ (সাত) দিনের মধ্যে মালিকানা পরিবর্তন করা হবে। নিম্নলিখিত হারে নাম পরিবর্তন ফি প্রদান প্রযোজ্য হইবেঃ

 

 

গ্রাহক শ্রেণী

নাম পরিবর্তন ফি

সদস্য ফি

মন্তব্য

 

 

আবাসিক

১০০.০০

২০.০০

ক) সংযোগ স্থান পরিবর্তন যোগ্য নহে।

খ) নতুন গ্রাহককে নির্ধারিত হারে নিরাপত্তা জামানত জমা দিতে হবে। চুক্তি সম্পাদনের সময় ছবি জমা দিতে হবে।

গ) কোন বকেয়া না থাকলে পূর্বের গ্রাহক তাহার সদস্য ফি ও নিরাপত্তা  জামানত উঠিয়ে নিতে পারবেন।

 

 

বানিজ্যিক

২০০.০০

২০.০০

 

 

এক ফেজ সেচ/ শিল্প

৫০০.০০

২০.০০

 

 

তিন ফেজ সেচ/ শিল্প

১০০০.০০

২০.০০

 

২০.০০

 

 

 

সংযোগ/পূণঃ সংযোগ ফি

 

বকেয়ার কারণে কোন সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হলে সমূদয় বকেয়া পরিশোধ পূবর্ক নিম্ন লিখিত ফি জমা প্রদান করতে হবে।

 

গ্রাহক শ্রেনী

সংযোগ বিচ্ছিন্ন ফি

পুনঃ সংযোগ ফি

মন্তব্য

 

আবাসিক /দাতব্য প্রতিষ্ঠান

১০০.০০

৫০.০০

ক) দীর্ঘদিন বিচ্ছিন্ন থাকলে পূনঃ ওয়্যারিং রিপোর্টের প্রয়োজন হবে।

খ) প্রযোজ্য ক্ষেত্রে অফেরৎযোগ্য/ ফেরৎযোগ্য   জামানত

   জমা দিতে হবে।

 

 

বাণিজ্যিক (৫ কিঃ ওঃ পর্যন্ত)

১৫০.০০

৭৫.০০

 

বাণিজ্যিক (৫ কিঃ ওঃ এর উর্দ্ধে)

২০০.০০

১০০.০০

 

রাস্তার বাতি

১০০.০০

১০০.০০

 

সেচ ১ফেজ

১০০.০০

১০০.০০

 

সেচ ৩ ফেজ

২০০.০০

২০০.০০

 

শিল্প (১ফেজ)

২০০.০০

২০০.০০

 

শিল্প (৩ফেজ ১০কেভিএ  পর্যন্ত)

২০০.০০

২০০.০০

 

শিল্প ( ৩ফেজ ১০কেভিএ হতে ৪৫ কেভিএ পর্যন্ত)

৫০০.০০

৫০০.০০

 

শিল্প (৩ফেজ ৪৫কেভিএ হতে ৭৫ কেভিএ পর্যন্ত)

৭৫০.০০

৭৫০.০০

 

শিল্প (৩ফেজ ৭৫কেভিএ ১৫০ কেভিএ পর্যন্ত)

১০০০.০০

১০০০.০০

 

শিল্প(৩ফেজ ১৫০ কেভিএর উর্দ্ধে)

১৫০০.০০

১৫০০.০০

 

            

 

বিদ্যুৎ সংযোগের নিয়মাবলী

সকল ধরনের বিদ্যুৎ সংযোগের ক্ষেত্রে পবিস কর্তৃক বিদ্যুৎ সংযোগের সম্মতিপত্র /অনুমোদন প্রাপ্তির পর আবদেনকারী কর্তৃক পবিসের প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত  গ্রাম বিদ্যুৎবিদ দ্বারা এবং মানসম্মত বৈদ্যুতিক মালামাল দ্বারা আভ্যন্তরীণ ওয়্যারিং  সম্পন্ন করতে হবে।

আবাসিক/ বাণিজ্যিক/ সি,আই সংযোগ

 (ক)    এলটি লাইন হইতে ১০৫ ফুটের মধ্যে ষ্টেকিং ভুক্ত হলেঃ

০১।

অত্র সমিতির সদস্য-সেবা বিভাগ কর্তৃক সরবরাহকৃত আবদেন ফরমে নির্ধারিত আবেদন ফি এবং প্রয়োজনীয় দলিলাদি জমাদান পূর্বক সংযোগের জন্য আবেদন করতে হবে।

০২।

সমিতির নিয়মানুযায়ী নিরাপত্তা জামানত জমা দিতে হবে।

(খ)

এলটি লাইন হইতে ১০৫ ফুটের বাহিরে ও  ষ্টেকিং বর্হিভুত হলে (রাজন্ব নীতিমালায় অনুত্তীর্ণের বেলায়)ঃ

০১।

সমিতি কর্তৃক সরবরাহকৃত নির্ধারিত আবেদন ফরম পূরণ করিয়া প্রাথমিক সমীক্ষা ফি এবং প্রয়োজনীয় দলিলাদি জমাদান পূর্বক সংযোগের জন্য আবেদন করতে হবে।

০২&।

ডিপোজিট ওয়ার্কের আওতায় রাজন্ব নীতিমালায় উর্ত্তীণ ,প্রযোজ্র ক্ষেত্রে পবিবোর্ডেও অনমোদন গ্রহন পরবর্তী ,পবিসের বিপরীতে পবিবোর্ড কর্তৃক প্রয়োজনীয় মাইলেজ এবং মালামাল বরাদ্দ সাপেক্ষে লাইন নির্মাণ কাজের জন্য সমিতির নীতিমালা অনুযায়ী নির্ধারিত হারে লাইন নির্মাণ খরচ প্রদান করতে হবে।

০৩।

লাইন নির্মাণ সাপেক্ষে সমিতির মান অনুযায়ী আভ্যন্তরীণ ওয়্যারিং সম্পাদন করতঃ নিয়মানুযায়ী নিরাপত্তা জামানত প্রদান করতে হবে।

 

শিল্প সংযোগ

০১।

 সমিতির সদস্য-সেবা বিভাগ কর্তৃক সরবরাহকৃত আবদেন ফরমে নির্ধারিত আবেদন ফি এবং প্রয়োজনীয় দলিলাদি জমাদান পূর্বক সংযোগের জন্য আবেদন করতে হবে।

০২।

নতুন লাইন নির্মাণ করিয়া শিল্প কারখানায় সংযোগ নিতে হলে নির্মাণ খরচ শিল্প / মিল মালিককেই বহন করতে হবে।লাইন নির্মাণ/ নবায়ন খরচ সমিতির নীতিমালা  অনুযায়ী নির্ধারিত হবে।

০৩।

প্রত্যেক শিল্প প্রতিষ্ঠানকে প্রয়োজনীয় সাইজের ট্রান্সফরমার  ও আনুসাঙ্গিক যন্ত্রপাতি নিজ দায়িত্বে সরবরাহ করিতে হবে।

 

বিদ্যুৎ সংযোগ বিষয়ক সম্মতিপত্র

০১।

ক)প্রয়োজনীয় দলিলাদি প্রদান সহ সমিতির নির্ধারিত আবেদন ফরম পূরণ ও সমীক্ষা ফি জমা করতঃ আবেদন করতে হবে।

খ) প্রযোজ্য ক্ষেত্রে লানি নির্মাণ ব্যয় বহন করতে হবে।

গ) লোড সংরক্ষণ চার্জ ২ বছর পর্যন্ত  প্রতি কেভিএ ৫.০০ টাকা প্রতিমাস অথবা ৫০০.০০ টাকা প্রতিমাস এবং ২ বছর অতিক্রান্ত হলে  প্রতি কেভিএ ১০.০০ 

   টাকা প্রতিমাস অথবা ১০০০.০০ টাকা প্রতিমাস তন্মধ্যে যাহা বেশী তাহা সম্মতিপত্র ইস্যুর পূর্বে সমিতির অনুকহলে জমা প্রদান করতে হবে।

 

সাময়িক বিদ্যুৎ সংযোগ

*

নির্মানাধীন বৃহৎ শিল্প /কমপ্লেক্স এর ক্ষেত্রে নির্মাণ কাজের জন্য বিদ্যুৎ সংযোগ গ্রহন করতে চাইলে প্রয়োজনীয় লোড সংরক্ষণ চুক্তি সম্পাদন পরবর্তী প্রস্তাবিত মোট লোডের প্রয়োজনীয় জামানত গ্রহন, লাইন নির্মাণ প্রাক্কলন গ্রহন পূর্বক প্রার্থীত লোডে সাময়িক বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া যেতে পারে যা পরবর্তীতে গ্রাহক আবেদনের প্রেক্ষিতে স্থায়ী সংযোগে রূপান্তরিত করা হবে।

*

এ ধরনের সংযোগ সুবিধা সৃষ্টির জন্য প্রয়োজনীয় শ্রমিকের মজুরী , বিচ্ছিন্ন ও সংযোগ ফি জমা প্রদান করতে হাবে।

*

সার্ভিস চুক্তি অনুযায়ী নির্ধারিত সময়ের ব্যবহৃত বিদ্যুতের প্রাক্কলিত মূল্য জিপি রেট সিডিউল অনুযায়ী অগ্রীম জমা দিতে হবে।

*

উপরোক্ত বর্ণনানুযায়ী অর্থ ছাড়াও নীতি নির্দেশিকা মোতাবেক প্রয়োজ্য ক্ষেত্রে লাইন নির্মাণ /লাইন রূপান্তর/ পরিবর্তন ব্যয় আবেদনকারীকে বহন করতে হবে।

 

পোল /লাইন/ মিটার স্থানান্তর

 

সকল ধরনের বৈদ্যুতিক লাইন/ পোল / মিটার স্থানান্তও ও সার্ভিস ড্রপ রুট পরিবর্তনের ক্ষেত্রে পবিসের সদস্য সেবা বিভাগ কর্তর্ৃক সরবরাহকৃত আবেদন ফরমে ৫০০.০০ টাকা আবেদন ফি  এবং প্রয়োজনীয় দলিলাদি জমাদান পূর্বক স্থানান্তরের জন্য আবেদন করতে হবে।

 

পোল /লাইন স্থানান্তর

 

কারিগরী ভাবে পোল/লাইন স্থানান্তর যোগ্য হলে গ্রাহককে চিঠির মাধ্যমে অবহিত করার পর পবিসের অনুকূলে স্থানান্তর বাবদ প্রয়োজনীয় প্রাক্কলন জমা প্রদান করতে হবে। মালামাল প্রাপ্তি সাপেক্ষে পবিস কর্তৃক পোল / লাইন স্থানান্তর করা হবে।

 

মিটার স্থানান্তর

 

স্থানান্তরীত স্থানে পবিস এর সার্ভিস পোল এবং ট্রান্সফরমার এর আওতায় হলে প্রয়োজনীয় ডিসি/ আরসি ফি গ্রহন,বকেয়া বিল (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) আদায় পূর্বক মিটার স্থানান্তও করা যাবে। বিষয়টি সার্ভিস  ড্রপের বর্হিভূত হলে প্রয়োজনীয় লাইন নির্মাণ প্রাক্কলন , জামানত (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)পবিসের অনুকূলে জমা প্রদান করতে হবে।

 

মিটার পরীক্ষণ ফি

 

মিটারের কার্যকারিতা সম্পর্কে গ্রাহকের কোন অভিযোগ থাকলে সর্বশেষ বিল সহ সমুদয় বকেয়া বিল পরিশোধ করিয়া নিম্নলিখিত হারে মিটার পরীক্ষার ফি জমা প্রদান করতে হবে।

ক্রঃনং

গ্রাহক শ্রেনী

মিটারের ধরণ

পরীক্ষা ফি (টাকা)

 

       ০১

আবাসিক , বাণিজ্যিক, সি আই , রাস্তার বাতি

১ ফেজ

১০০.০০

 

 

 

৩ ফেজ

২০০.০০

 

০২

সেচ

১ ফেজ

২০০.০০

 

 

 

৩ ফেজ

৪০০.০০

 

০৩

 জি পি

১ ফেজ

২০০.০০

 

 

 

৩ ফেজ (ডিমান্ড ছাড়া)

৪০০.০০

 

 

 

৩ ফেজ (ডিমান্ড সহ)

১০০০.০০

 

০৪

এল পি

৩ ফেজ (ডিমান্ড সহ)

১০০০.০০

 

 

মিটার টেষ্টিং রিপোর্ট এর ভিত্তিতে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে বিল সমন্বয় করা হবে। মিটার টেষ্টিং রিপো©র্ট মিটারের কোন ত্রুটি পাওয়ানা গেলে মিটার টেষ্টিং ফি বাজেয়াপ্ত করা হবে। মিটারে ত্রুটি পাওয়া গেলে মিটার টেষ্টিং ফি ফেরৎ /বিলের সাথে সমন্বয় করা হবে।

 

অনুমোদন বিহীন  অতিরিক্ত লোড বাড়ালে তার বিরুদ্ধে গৃহীত ব্যবস্থা

 

অনুমোদন বিহীন  লোড বৃদ্ধি করা বিদ্যুৎ আইন অনুযায়ী দন্ডনীয় অপরাধ। অনুমোদন বিহীন  লোড বৃদ্ধি করলে অতিরিক্ত প্রতি কিঃ ওঃ লোড বৃদ্ধির জন্য দ্বিগুন হাওে ডিমান্ড চার্জ প্রদান করতে হয়। এক্ষেত্রে এক মাসের মধ্যে প্রয়োজনীয় ফি  এবং জামানত প্রদান করেলোড বৃদ্ধি হাল নাগাদ করতে হয় অন্যথায় সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।

 

পাওয়ার ফ্যাক্টর মাশুল

 

সকল ধরনের ইনডাক্টিভ লোড ব্যবহারকারী শিল্প ও সেচ সংযোগের ক্ষেত্রে পাওয়ার ফ্যাক্টর এর মান ৯৫% রাখা বাধ্যতামূলক। এই মান ৯৫% এর নীচে থাকলে নির্ধারিত হারে ব্যবহৃত ইউনিটের উপর জরিমানা আদায়যোগ্য। একবছর জরিমানা আদায়ের পর পাওয়ার ফ্যাক্টর এর মান ৯৫% এ উন্নীত না হলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হবে। পাওয়ার ফ্যাক্টর এর মান ৯৫% এ অক্ষুন্ন রাখার জন্য পাওয়ার ইমপ্রুভমেন্ট প্লান্ট/ ক্যাপাসিটর ব্যবহার বাধ্যতামূলক।

অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহার, মিটারে হস্তক্ষেপ, বাইপাস বিনা অনুমতিতে সংযোগ গ্রহন ইত্যাদি ক্ষেত্রে আইনগত ব্যবস্থা

*

বিদ্যুৎ আইনের / Electricity Act, 1910 & As Amended and Electricity ( Amendmend) Act 2206/৩৯ ধারা অনুসারে এ ক্ষেত্রে ন্যূনতম  ৩ বছর হতে ৫ বছর পর্যন্ত  জেল এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানার বিধান রয়েছে। ইহা ছাড়া, অবৈধভাবে  বিদ্যুৎ ব্যবহরের কারণে নীতিমালা অনুযায়ী প্রাক্কলিত বিল, ক্ষতিগ্রস্থ মালামালের মূল্য , সাধারণ জরিমান আদায় এবং প্রযোজ্য ক্ষেত্রে সংযোগ বিচ্ছিন্ন এবং পুনঃ সংযোগ ফি গ্রহণ করা হয়।

      

 

শ্রেনী ভিত্তিক বিদ্যমান বিদ্যুতের মূল্যহার

                                                       

ক্রঃনং

গ্রাহক শ্রেণী

প্রতি ইউনিট মূল্য (টাকার)

০১।

শ্রেণী-বি(আবাসিক)ঃ

(ক) প্রথম ধাপঃ ০০ হতে ১০০ ইউনিট পর্যন্ত

(খ) দ্বিতীয় ধাপঃ ১০১ হতে ৩০০ ইউনিট পর্যন্ত

(গ) তৃতীয় ধাপঃ ৩০১ হতে ৫০০ পর্যন্ত

(ঘ) চতুর্থ ধাপঃ ৫০০ ইউনিট এর উর্দ্ধে

 

২.৯৫

৩.২৮

৪.৬৮

৭.০০

০২।

 শ্রেণী বি( বাণিজ্যিক)ঃ

৫.৯০

 

০৩।

সি/আই (দাতব্য প্রতষ্ঠান)

৩.২৮

০৪।

 শ্রেণী- আই( সেচ)ঃ

২.৮১

০৫।

 শ্রেণী জি পি( ক্ষুদ্র শিল্প)ঃ

(ক) ফ্ল্যাট রেট

 

৪.৬৩

০৬।

শ্রেণী এল পি (বৃহৎ শিল্প)ঃ

(ক) ফ্ল্যাট রেট

৪.৫১

 

০৭।

শ্রেণী-এস এল (রাস্তার বাতি)ঃ

৪.৩২

·        পিক সময়ঃ বিকাল ৫ টা থেকে রাত ১১ টা পর্যন্ত

·        অফ-পিক সময়ঃ রাত ১১ টা থেকে পরদিন বিকাল ৫ টা পর্যন্ত

উপরোক্ত বিদ্যুতের মূল্যাহারের সাথে নূন্যতম চার্জ ,ডিমান্ড চার্জ, সার্ভিস চার্জ , মিটারের মূল্যের কিস্তি ও অন্যান্য শর্তাবলীসহ মূল্য সংযোজন কর যথারীতি প্রযোজ্য হবে। বিদ্যুতের মূল্যহার সরকার  কর্তৃক অনুমোদিত এবং পরিবর্তনযোগ্য।

চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ কে স্বনির্ভর  হিসেবে গড়তে সহায়তা করুন।

 

 

           -ঃগ্রাহকের জ্ঞাতব্য বিষয়ঃ-

 

*

সন্ধ্যা পিক-আওয়ারে বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হোন। আপনার সাশ্রয়কৃত বিদ্যুৎ অন্যকে আলো জ্বালাতে সাহায্য করবে।

*

সংযোগ বিচ্ছিন্ন এড়াতে নিয়মিত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করুন এবং বিলম্ব মাশুল পরিশোধের ঝামেলা থেকে মুক্ত থাকুন।

*

বিদ্যুৎ বিল সাশ্রয়কল্পে মানসম্মত এনার্জি সেভিং বাল্ব (CFL) ও বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম ব্যবহার করুন।

*

 টিউব লাইটে Electronic Ballastব্যবহার করে বিদ্যুৎ  সাশ্রয় করুন।

*

 বিদ্যুৎ একটি মূল্যবান জাতীয় সম্পদ। দেশের বৃহত্তর স্বার্থে এই সম্পদের সুষ্ঠু ও পরিমিত ব্যবহারে ভূমিকা রাখুন।

*

বৎসরান্তে বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ / ই,এস,ইউ / পবিস হতে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের প্রমাণ পত্র প্রদান করা হয়ে থাকে।

*

মিটার রক্ষনাবেক্ষণের দায়িত্ব আপনার। এর সঠিক সুষ্ঠু অবস্থা ও সীল সমূহের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন।

*

 বিদ্যুৎ চুরি ও এর অবৈধ ব্যবহার থেকে নিজে বিরত থাকুন ও অন্যকে নিবৃত করুন। বিদ্যুৎ চুর ও এর অবৈধ ব্যবহার রোধে আপনার জ্ঞাত তথ্য গ্রাহক সেবা কেন্দ্র / অভিযোগ কেন্দ্র এ অবহিত করে সহযোগিতা করা আপনার দায়িত্ব ।

*

ইদানিং একটি সংঘবদ্ধ অসাধূ চক্র চালু লাইনে হতে ট্রান্সফরমার / বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি / তার চুরির সাথে জড়িত । সুতরাং আপনার এলাকার উপরিউক্ত চুরি রোধে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করুন।

*

বৈদ্যুতিক মালামাল চুরির ক্ষেত্রে  নির্দেশিকা অনুযায়ী গ্রাহককে মূল্য পরিশোধ করতে হবে।

*

পার্শ্ব সংযোগ প্রদান বিদ্যুৎ আইন অনুযায়ী দন্ডনীয় অপরাধ। পার্শ্ব সংযোগ প্রদান হইতে বিরত থাকুন । পার্শ্ব সংযোগ প্রদান করলে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয় এবং নিম্নবর্নিত হারে জরিমানা আদায় করা হয়।

                                                                                               

ক্রমিক নং

গ্রাহক শ্রেণী

  প্রতিটি পার্শ্ব সংযোগের জরিমানা (টাকা)

    ০১

আবাসিক

২৫০.০০

০২

বানিজ্যিক

৫০০.০০

০৩

সেচ

১,৫০০.০০

০৪

শিল্প

৩,০০০.০০

বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্নকরণ এড়াতে যথাসময়ে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করুন।

ছবি নাম মোবাইল
সাখাওয়াত উল্লাহ ০১৯৭৩-২২৯৪১১

ছবি নাম মোবাইল

ছবি নাম মোবাইল

Ø      আরইই কেডিপি-১ (REE-KDP-1)

Ø      জাইকা (JICA)

Ø      ১০ লক্ষ গ্রাহক সংযোগ প্রকল্পের আওতায় গ্রাহক সংযোগ বৃদ্ধি

চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-০২, রাউজান, চট্টগ্রাম।
web: www.ctgpbs2.org
ফোন: ০৩০২৬-৫৬০৭৭
ওয়ারলেস কোড-২৭।
ই-মেইলঃ info@ctgpbs2.orgThis e-mail address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it / ctgpbs2@yahoo.com